মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

সেবার তালিকা

সঞ্চয় পত্র সংক্রান্ত যাবতীয় তথ্য ও সেবা দেওয়া হয়

 

1. প্রান্তীক জনগোষ্ঠীকে সঞ্চয়ে উৎসাহ প্রদান

2. সঞ্চয় পত্র ইস্যু

3. মুনাফা প্রদান

4.  মূল নগদায়ন

5. E-savings software এর মাধ্যমে যাবতীয় লেনদেন পরিচালনা করা হয়।

6. EFT (Electronic Fund Transfer) এর মাধ্যমে বিনিয়োগকারীর অনলাইন হিসাব নম্বরে মুনাফা ও মূল অর্থ প্রেরণ করা হয়।

ক্রমিক নং স্কিমের নাম  স্কিম সম্পর্কে বিস্তারিত মুনাফার হার (%)
১।

 

  • পরিবার সঞ্চয়পত্র
  • মেয়াদকাল- ৫ বছর
  • পরিবার সঞ্চয়পত্রের অন্যান্য সুবিধা
  • প্রতি মাসে মুনাফা উত্তোলন করা যায়।
  • নমিনী নিয়োগ, পরিবর্তন ও বাতিল করা যাবে।
  • সঞ্চয়পত্র হারিয়েগেলে, পুড়েগেলে বা নষ্ট হয়ে গেলে ডুপ্লিকেট সঞ্চয়পত্র ইস্যু করা যাবে।
  • যারা ক্রয় করতে পারবে
  • ১৮ বছর ও তদুর্ধ্ব যে কোন বাংলাদেশী মহিলা                       
  • যে কোন বাংলাদেশী শারীরিক প্রতিবন্ধী (পুরুষ ও মহিলা)
  • ৬৫ বছর ও তদুর্ধ্ব যে কোন বাংলাদেশী (পুরুষ)
  • একক নামে সর্বোচ্চ ৪৫ লক্ষ টাকা ক্রয় করা যাবে।
  • ক্রেতা চাইলে যে কোন সময়ে বিনিয়োগকৃত মূলধন আংশিক বা সম্পূর্ন নগদায়ন করতে পারবে।

 

সঞ্চয়পত্র ক্রয় পদ্ধতিঃ/ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

•   নির্ধারিত ফরম  যথাযথভাবে পুরণপূর্বক ত্রেতা ও নমিনী  প্রত্যেকের ০২ (দুই) কপি ছবি, ক্রেতার জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপিসহ আবেদন করতে হবে।

  •  E-TIN নম্বর বাধ্যতামূলক (১ লক্ষ টাকার ঊর্ধে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে)।
  • অনলাইন ব্যাংক হিসাব নম্বর।

•    চেকের মাধ্যমে সমপরিমাণ অর্থ পরিশোধ করতে হবে। তবে চেকের মাধ্যমে সঞ্চয়পত্র ক্রয়ের ক্ষেত্রে চেক নগদায়নের তারিখে সঞ্চয়পত্র ইস্যু করা হবে;

  • ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত নগদ অর্থ বিনিয়োগ করা যায় সেক্ষেত্রে E-TIN নম্বর বাধ্যতামূলক নয় ।

 

[টীকা।- সঞ্চয়পত্র ক্রয় ফরমে জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর অন্তর্ভূক্তি এবং কর্তৃপক্ষকে উহা প্রদর্শন বাধ্যতামূলক। ক্রেতা জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদর্শন করিতে অপারগ হইলে সেই ক্ষেত্রে পাসপোর্ট  অথবা জন্মনিবন্ধন সনদের নম্বর অন্তর্ভূক্তি এবং কর্তৃপক্ষকে উহা প্রদর্শন বাধ্যতামূলক হইবে ।]

 

১১.৫২%
২।

 

 

 

তিন মাস অন্তর মুনাফা ভিত্তিক সঞ্চয়পত্র

 

মেয়াদকাল- ৩ বছর

 

তিন মাস অন্তর মুনাফা ভিত্তিক সঞ্চয়পত্রের অন্যান্য সুবিধা 
  • প্রতি তিনমাসে মুনাফা উত্তোলন করা যায়।
  • নমিনী নিয়োগ, পরিবর্তন ও বাতিল করা যাবে।
  • সঞ্চয়পত্র হারিয়েগেলে, পুড়েগেলে বা নষ্ট হয়ে গেলে ডুপ্লিকেট সঞ্চয়পত্র ইস্যু করা যাবে।
যারা ক্রয় করতে পারবে
  •   সকল শ্রেণী পেশার বাংলাদেশী  নাগরিক।

 

  • একক নামে সর্বোচ্চ ৩০ লক্ষ টাকা এবং যুগ্ম নামে ৬০ লক্ষ টাকা ক্রয় করা যাবে।
  • ক্রেতা চাইলে যে কোন সময়ে বিনিয়োগকৃত মূলধন আংশিক বা সম্পূর্ন নগদায়ন করতে পারবে।

সঞ্চয়পত্র ক্রয় পদ্ধতিঃ/ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

•   নির্ধারিত ফরম  যথাযথভাবে পুরণপূর্বক ত্রেতা ও নমিনী  প্রত্যেকের ০২ (দুই) কপি ছবি, ক্রেতার জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপিসহ আবেদন করতে হবে।

  •  E-TIN নম্বর বাধ্যতামূলক (১ লক্ষ টাকার ঊর্ধে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে)।
  • অনলাইন ব্যাংক হিসাব নম্বর।

•    চেকের মাধ্যমে সমপরিমাণ অর্থ পরিশোধ করতে হবে। তবে চেকের মাধ্যমে সঞ্চয়পত্র ক্রয়ের ক্ষেত্রে চেক নগদায়নের তারিখে সঞ্চয়পত্র ইস্যু করা হবে;

  • ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত নগদ অর্থ বিনিয়োগ করা যায়, সেক্ষেত্রে E-TIN নম্বর বাধ্যতামূলক নয় ।

 

[টীকা।- সঞ্চয়পত্র ক্রয় ফরমে জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর অন্তর্ভূক্তি এবং কর্তৃপক্ষকে উহা প্রদর্শন বাধ্যতামূলক। ক্রেতা জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদর্শন করিতে অপারগ হইলে সেই ক্ষেত্রে পাসপোর্ট  অথবা জন্মনিবন্ধন সনদের নম্বর অন্তর্ভূক্তি এবং কর্তৃপক্ষকে উহা প্রদর্শন বাধ্যতামূলক হইবে ।]

১১.০৪%
৩।  

সঞ্চয়পত্র ক্রয় পদ্ধতিঃ/ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

•   নির্ধারিত ফরম  যথাযথভাবে পুরণপূর্বক ত্রেতা ও নমিনী  প্রত্যেকের ০২ (দুই) কপি ছবি, ক্রেতার জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপিসহ আবেদন করতে হবে।

  •  E-TIN নম্বর বাধ্যতামূলক (১ লক্ষ টাকার ঊর্ধে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে)।
  • অনলাইন ব্যাংক হিসাব নম্বর।

•    চেকের মাধ্যমে সমপরিমাণ অর্থ পরিশোধ করতে হবে। তবে চেকের মাধ্যমে সঞ্চয়পত্র ক্রয়ের ক্ষেত্রে চেক নগদায়নের তারিখে সঞ্চয়পত্র ইস্যু করা হবে;

  • ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত নগদ অর্থ বিনিয়োগ করা যায়, সেক্ষেত্রে E-TIN নম্বর বাধ্যতামূলক নয় ।

 

[টীকা।- সঞ্চয়পত্র ক্রয় ফরমে জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর অন্তর্ভূক্তি এবং কর্তৃপক্ষকে উহা প্রদর্শন বাধ্যতামূলক। ক্রেতা জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদর্শন করিতে অপারগ হইলে সেই ক্ষেত্রে পাসপোর্ট  অথবা জন্মনিবন্ধন সনদের নম্বর অন্তর্ভূক্তি এবং কর্তৃপক্ষকে উহা প্রদর্শন বাধ্যতামূলক হইবে ।]

 
৪।  

সঞ্চয়পত্র ক্রয় পদ্ধতিঃ/ প্রয়োজনীয় কাগজপত্র

•   নির্ধারিত ফরম  যথাযথভাবে পুরণপূর্বক ত্রেতা ও নমিনী  প্রত্যেকের ০২ (দুই) কপি ছবি, ক্রেতার জাতীয় পরিচয় পত্রের ফটোকপিসহ আবেদন করতে হবে।

  •  E-TIN নম্বর বাধ্যতামূলক (১ লক্ষ টাকার ঊর্ধে বিনিয়োগের ক্ষেত্রে)।
  • অনলাইন ব্যাংক হিসাব নম্বর।

•    চেকের মাধ্যমে সমপরিমাণ অর্থ পরিশোধ করতে হবে। তবে চেকের মাধ্যমে সঞ্চয়পত্র ক্রয়ের ক্ষেত্রে চেক নগদায়নের তারিখে সঞ্চয়পত্র ইস্যু করা হবে;

  • ১ লক্ষ টাকা পর্যন্ত নগদ অর্থ বিনিয়োগ করা যায়, সেক্ষেত্রে E-TIN নম্বর বাধ্যতামূলক নয় ।

 

[টীকা।- সঞ্চয়পত্র ক্রয় ফরমে জাতীয় পরিচয়পত্রের নম্বর অন্তর্ভূক্তি এবং কর্তৃপক্ষকে উহা প্রদর্শন বাধ্যতামূলক। ক্রেতা জাতীয় পরিচয়পত্র প্রদর্শন করিতে অপারগ হইলে সেই ক্ষেত্রে পাসপোর্ট  অথবা জন্মনিবন্ধন সনদের নম্বর অন্তর্ভূক্তি এবং কর্তৃপক্ষকে উহা প্রদর্শন বাধ্যতামূলক হইবে ।]

 

 

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter